পরপর দুটি উদ্যোগ|| প্রশংসায় ভাসছেন ডিএফএ সভাপতি মানিক

64

স্টাফ রিপোর্টার: শেরপুরে ডিএফএ সভাপতি’র পরপর দুটি উদ্যোগে জেলাজুড়ে ব্যাপক সাড়া মিলেছে।ক্রীড়ামুদিদের যেমন আগ্রহ বেড়েছে ঠিক তেমনিই কোমলমতি খেলোয়ারদের মনে ব্যাপক উৎসাহ জোগিয়েছে। গত ৯আগষ্ট রাতে তিনি তার ফেইসবুক ওয়ালে লাইক না দিয়ে ফুটবল দিন এমন একটা স্ট্যাটাস দেন। এমন স্ট্যাটাসে শেরপুরসহ দেশবিদেশে ব্যাপক সাড়া মিলে।

ডিএফএ সভাপতি’র ট্রাকভর্তী ফুটবল দেওয়ার ইচ্ছেটি ছুঁই ছুঁই অবস্থানে রয়েছে। যেকোন দিন ট্রাকভর্তী ফুটবল নিয়ে হাজির হবেন তিনি। ট্রাক ভর্তী ফুটবল দেওয়ার প্রত্যয় শেষ না হতেই ১৯ দিনের ব্যাবধানে তিনি আবারো একটি স্ট্যাটাস দেন। সেখানে উল্লেখ করেন, যে সকল ছেলে-মেয়েরা মোবাইল ফোনে গেইম খেলবে না এবং নেশা গ্রহন করবে না তাদের খেলা- ধুলার সকল প্রয়োজনীয় জিনিস তিনি প্রদান করবেন।

এমন স্ট্যাটাসের ফলে জেলায় সচেতন নাগরিক, ক্রীড়া সংগঠনের সাবেক বর্তমান নেতৃবৃন্দ, সাবেক বর্তমান খেলোয়ার, সামাজিক ও রাজনৈতিক, সাংবাদিক মহলে ব্যাপক প্রশংসা কুড়িয়েছে। তার সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেইসবুকে স্ট্যাটাসটি হুবহু তুলে ধরা হলো, শেরপুর জেলার যে সকল ছেলে মেয়ে অঙ্গীকার করবে যে, তারা মোবাইল ফোনে গেইম না খেলে, ফুটবল, ক্রিকেট, ব্যাডমিন্টন, টেবিল টেনিস, দাবা খেলবে এবং সাঁতার শিখবে তাদের খেলার জন্য প্রয়োজনীয় সামগ্রী প্রদান করা হবে।(আর্থিক ভাবে অসমর্থদের পোষাকও প্রদান করা হবে)।

অঙ্গীকার করতে ইচ্ছুকগণ যোগাযোগ করবেনঃ ফুটবলঃ- ১) সাধন বসাক,২) মজিবুর রহমান,৩) শাহরিয়ার রবীন। ক্রিকেটঃ- ১) শিপন,২)শোভন,৩) সনিক, ৪) রাজিব। ব্যাডমিন্টনঃ ১) অজয় চক্রবর্তী জয়,২) লুৎফর রহমান লুলু,৩) আব্দুল করিম। দাবাঃ ১) মোঃ জাকির হোসেন বাবলু ২) হাকিম বাবুল। টেবিল টেনিসঃ ১) সৈয়দ বদরুল হক রেজভী,২) সৈয়দ বরিউল করিম মনি। সাঁতারঃ ১) সারোয়ার জাহান পপলিন,২) আবুল হাশিম। বিশেষ প্রয়োজনে আমার সাথেও যোগাযোগ করতে পারেন, মানিক দত্ত ০১৭১২ ৯৬৭০৯৬. ০১৯১৯ ৯৬৭০৯৬