বঙ্গবন্ধুর দর্শন ধারণ করে দারিদ্র্যমুক্ত বাংলাদেশ গড়ে তুলতে হবে

19

অনলাইন বার্তা ডেস্ক: স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী এমপি বলেছেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বাঙালি জাতিকে গভীরভাবে ভালোবাসতেন। তাই এ জাতির অর্থনৈতিক ও রাজনৈতিক মুক্তির জন্য আজীবন সংগ্রাম করে গেছেন। আত্মপ্রত্যয় ও আত্মশক্তিতে বলীয়ান এই মহান নেতা অন্যায়ের কাছে কখনোই মাথা নত করেননি। বঙ্গবন্ধুর দর্শন ধারণ করে শোষণ ও দারিদ্র্যমুক্ত বাংলাদেশ গড়ে তুলতে সকলকে কাজ করতে হবে।

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৫তম শাহাদত বার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে সোমবার (১৭ আগস্ট) সংসদ সচিবালয় আয়োজিত ‘আলোচনা সভা, দোয়া ও মোনাজাত’ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় স্পিকার এ কথা বলেন।

শিরীন শারমিন বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ছিলেন অবিসংবাদিত নেতা, যিনি সারাজীবন নির্লোভ ও নির্মোহ থেকে বাংলার মানুষের অধিকার আদায়ের প্রশ্নে ছিলেন আপসহীন। ২৫ মার্চের কালরাতেও অদম্য সাহসিকতার সাথে তিনি স্বাধীনতার ঘোষণা দিয়েছেন। পদ-পদবির লোভ না করে বৃহত্তর লক্ষ্যকে সামনে রেখে তিনি এগিয়ে গেছেন এবং বেগম ফজিলাতুন্নেছা মুজিব ছিলেন তার ছায়াসঙ্গী। ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট বঙ্গবন্ধু ও বেগম মুজিব, তাদের দুই পুত্র, দুই পুত্রবধূ ও শিশু শেখ রাসেলকে নির্মমভাবে হত্যা করা হয়।

এসময় ১৫ আগস্টের সকল শহীদের প্রতি গভীর শ্রদ্ধা জানান স্পিকার।

শিরীন শারমিন বলেন, সুখী-সমৃদ্ধ সোনার বাংলা গঠনই ছিল জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের একমাত্র লক্ষ্য। তার লক্ষ্য ছিল সাধারণ মানুষের জীবনধারণ উপযোগী শোষণ ও বঞ্চনামুক্ত স্বাধীন বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠা। এই দর্শন ও আদর্শকে ধারণ করে তরুণ প্রজন্মকে এগিয়ে যেতে হবে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা অক্লান্ত পরিশ্রমের মাধ্যমে দেশ গঠনের কাজে যেভাবে আত্মনিয়োগ করেছেন তাতে আমাদের সকলকে সহযোগিতা করতে হবে।

সংসদ সচিবালয়ের সিনিয়র সচিব ড. জাফর আহমেদ খানের সভাপতিত্বে এবং গণসংযোগ অধিশাখার পরিচালক উপসচিব মো. তারিক মাহমুদ ও উপ-পরিচালক সামিয়া রুবাইয়াত হোসেইনের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে বাংলাদেশ ডেপুটি স্পিকার মো. ফজলে রাব্বী মিয়া এমপি, চিফ হুইপ নূর-ই-আলম চৌধুরী এমপি, হুইপ ইকবালুর রহিম এমপি ও হুইপ আতিউর রহমান আতিক এমপি বক্তব্য রাখেন।

অনুষ্ঠানে উপ-সচিব এস এম মঞ্জুর ও উপ-সচিব এ কে এম জি কিবরিয়া মজুমদার কবিতা আবৃত্তি এবং সিনিয়র কমিটি অফিসার ফারহানা বেগম বঙ্গবন্ধুর উদ্ধৃতি পাঠ করেন। সিনিয়র সহকারী সচিব আব্দুল মুনিম, সহকারী সচিব আসিফ হাসান, কর্মচারীদের পক্ষ থেকে আতর আলী ও আবুল খায়ের উজ্জ্বল বক্তব্য রাখেন। অনুষ্ঠানে সংসদ সচিবালয়ের কর্মকর্তা-কর্মচারীরা উপস্থিত ছিলেন।