শেরপুর প্রতিদিন ডট কম

Home ময়মনসিংহ বিভাগ শেরপুর জেলা শেরপুরে মানব পাচারকারীর শাস্তি ও আত্মসাৎকৃত অর্থ ফেরতের দাবিতে মানববন্ধন
শেরপুরে মানব পাচারকারীর শাস্তি ও আত্মসাৎকৃত অর্থ ফেরতের দাবিতে মানববন্ধন

শেরপুরে মানব পাচারকারীর শাস্তি ও আত্মসাৎকৃত অর্থ ফেরতের দাবিতে মানববন্ধন

শেরপুরে আল আমিন নামে এক মানব পাচারকারীর শাস্তি ও আত্নসাৎকৃত অর্থ ফেরতের দাবিতে মানববন্ধন করেছে এলাকাবাসী। আজ রবিবার (১৪ এপ্রিল) সকালে সদর উপজেলার ভাতশালা ইউনিয়নের কুঠুরাকান্দা গ্রামে এই মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করা হয়। স্থানীয় গ্রামবাসীর আয়োজনে মানববন্ধনে আদম প্রচারকারী কাছে প্রতারণার শিকার বেশ কয়েকজন যুবক ও তাদের অভিভাবক উপস্থিত ছিলেন।
মানববন্ধনে ভুক্তভোগীরা অভিযোগ করে বলেন, সম্প্রতি এ এলাকার প্রায় ৩০-৩২ জন যুবকের কাছ থেকে চাকুরি দেওয়ার কথা বলে মালয়েশিয়া প্রবাসী আল আমিন নামে এক মানব পাচারকারী লাখ লাখ টাকা হাতিয়ে নিয়েছেন। তবে বেশ কয়েকজন যুবক চাকরির আশায় মালয়েশিয়া গিয়ে সেখানে চাকরি না পেয়ে ফিরে আসেন। এসব যুবকদের মধ্যে সাজিবুর রহমান রিপন নামে এক যুবক ওই আদম প্রচারকারীর বিরুদ্ধে আদালতে ও শেরপুর সদর থানায় লিখিত অভিযোগ দাখিল করেন।
কিন্তু এতে ক্ষুব্ধ হয়ে ওই আদম পাচারকারীর লোকজন সাজিদকে মারপিট করে আহত করলে তিনি হাসপাতালে ভর্তি হন।
এদিকে ওই যুবক সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরলেও তাকে এবং তার পরিবারকে প্রাণনাশের হুমকি দিয়ে যাচ্ছেন বলে অভিযোগ করেন মানববন্ধনে।
ওই ভুক্তভোগী যুবক সাজিবুর রহমান রিপন জানায়, আমাকে আল আমিন মালেশিয়া গিয়ে কাজ না দিলে সেখান থেকে শেরপুর ফিরে আসি। এসে এ বিষয়ে প্রশাসনের কাছে লিখিত অভিযোগ দেওয়ায় আল আমিনের লোকজন আমাকে মেরে আহত করে। আমার মতো আরো অনেকেই আদম পাচারকারী আল আমিনের খপ্পরে পরে আজ নিঃস্ব। তারা কোন প্রতিকার না পেয়ে এ মানববন্ধন করছে। যেন সরকারের দৃষ্টিগোচর হয় এবং ওই আদম পাচারকারীর সাজা হয়।
এ বিষয়ে ভাতশালা ইউনিয়নের ৬ নং ওয়ার্ডের মেম্বার আব্দুল বারেক জানায়, আমাদের গ্রামের অনেক যুবক আজ আল আমিনের কাছে টাকা দিয়ে হতাশ। তারা টাকা দিয়ে ঘুরছে, আবার যারা মালয়েশিয়া গিয়েছে তাদের অনেকেই কাজ না পেয়ে মানবেতর জীবন যাপন করছে। এই আদম পাচারকারী আল আমিনের বিচারের দাবীতে এলাকাবাসী আজ একাট্টা হয়েছে।
এদিকে মানববন্ধনে স্থানীয় সচেতন গ্রামবাসী ওই আদম পাচারকারীর বিরুদ্ধে শাস্তি মূলক ব্যবস্থা গ্রহণ করার জন্য প্রশাসনের কাছে দৃষ্টি আকর্ষণ করেন। যেন ভাতশালা এই গ্রামের অন্য সব যুবক নতুন করে তার কবলে পড়ে অর্থনৈতিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত ও নিঃস্ব না হয়।
মানববন্ধনে ভুক্তভোগী পরিবারের সদস্য ছাড়াও গ্রামের সাধারণ নারী-পুরুষ সহ শতাধিক গ্রামবাসী অংশগ্রহন করেন।
এদিকে অভিযুক্ত মালেশিয়া প্রবাসী আল আমিনের সাথে যোগাযোগ করা হলে এসব অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, যারা মালয়েশিয়ায় আসছে তারা সবাই ভালো আছে। এছাড়া কারো কাছ থেকে অবৈধভাবে কোন টাকা নেওয়া হয়নি বলেও তিনি জানান।


LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

3 + four =