শেরপুর প্রতিদিন ডট কম

Home ময়মনসিংহ বিভাগ শেরপুর জেলা শেরপুরে আস্থা প্রকল্পের অবহিতকরণ সভা অনুষ্ঠিত
শেরপুরে আস্থা প্রকল্পের অবহিতকরণ সভা অনুষ্ঠিত

শেরপুরে আস্থা প্রকল্পের অবহিতকরণ সভা অনুষ্ঠিত

শেরপুরে জেলা পর্যায়ে আস্থা প্রকল্পের অবহিতকরণ সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। ১৫ জানুয়ারি সোমবার সকালে প্রকল্প বাস্তবায়নকারী সংস্থা স্বাবলম্বী উন্নয়ন সমিতির উদ্যোগে জেলা প্রশাসকের সম্মেলনকক্ষ রজনীগন্ধায় আয়োজিত এ সভায় সভাপতিত্ব করেন জেলা প্রশাসক (ডিসি) আব্দুল্লাহ আল খায়রুম।
এ সময় তিনি বলেন, বেসরকারি উন্নয়ন সংস্থাগুলোকে দেশপ্রেমে ব্রত নিয়ে মাঠ পর্যায়ে কাজ করতে হবে। বেকার যুবকদের প্রশিক্ষণের পাশাপাশি তাদের আত্মকর্মসংস্থানের সুযোগ সৃষ্টি করতে হবে। দেখাতে হবে আত্মস্বাবলম্বীতার পথ। তবেই প্রকল্পের উদ্দেশ্য সফল হবে।
সভায় স্বাগত বক্তব্য রাখেন স্বাবলম্বী উন্নয়ন সমিতির ভারপ্রাপ্ত নির্বাহী পরিচালক স্বপন কুমার পাল। এসময় তিনি আস্থা প্রকল্পের লক্ষ্য ও কার্যক্রম তুলে ধরে বলেন, শেরপুর জেলায় আস্থা প্রকল্পটি সুইজারল্যান্ডভিত্তিক দাতা সংস্থা এসডিসি’র সহায়তায় স্বাবলম্বী উন্নয়ন সমিতি বাস্তবায়ন করছে। এ প্রকল্পে মাধ্যমে জেলার যুব সমাজকে সামাজিক কর্মকাণ্ডে সম্পৃক্ত করে তাদের দক্ষতা বৃদ্ধি করা হবে।
সভায় প্রেজেন্টেশন উপস্থাপন করেন স্বাবলম্বী উন্নয়ন সমিতির ময়মনসিংহ ডিস্ট্রিক্ট কো-অর্ডিনেটর ইমন সরকার। এতে বলা হয়, ময়মনসিংহ ও সিলেট বিভাগের ৫টি জেলা শেরপুর, নেত্রকোনা, ময়মনসিংহ, সুনামগঞ্জ ও জামালপুর জেলার ৩১টি উপজেলায় তিন বছর মেয়াদে আগামী ২০২৬ সালের জুন পর্যন্ত ‘আস্থা’ প্রকল্পটি বাস্তবায়িত হবে। এতে প্রতিটি উপজেলায় ৩০ জন করে সদস্যের একটি করে যুব প্ল্যাটফর্ম এবং যুবদের কাজে সার্বিক সহযোগিতার জন্যজেলায় ৩০ জনের একটি করে নাগরিক প্ল্যাটফর্ম থাকবে। যেখানে দলমত নির্বিশেষে যুবদের নেতৃত্ব গঠন ও সামাজিক কার্যক্রমে সম্পৃক্ত করে দক্ষতা বৃদ্ধি পাবে। যাদের মাধ্যমে সরকারের যুব বিষয়ক কর্মকান্ড ও নীতিকে তৃণমুল পর্যায়ে চর্চার জন্য একটি অনুকুল পরিবেশ সৃষ্টি করবে। এতে শান্তি, সহনশীলতা, সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি, সহিষ্ণুতা এবং সুশাসন প্রক্রিয়ায় অর্ন্তভুক্তির ফলে যুবরা আদর্শ নাগরিক হিসেবে গড়ে ওঠবে এবং দেশ ও সমাজ উন্নয়নে আত্মনিয়োগ করবে। তিনি জানান, প্রকল্পের শতকরা ৮০ ভাগ অর্থায়ন করবে সুইস সরকার। আর ২০ ভাগ স্থানীয় সম্পদ সংগ্রহের মাধ্যমে এ প্রকল্পটি বাস্তবায়ন করা হবে। এতে ৫ জেলার ৩০ লাখ মানুষ প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষভাবে উপকৃত হবে। শেরপুর জেলায় তিন বছরে ৮৮ লাখ টাকা ব্যয়ে প্রকল্পটি বাস্তবায়িত হবে। এতে ৫ উপজেলায় ১টি করে ৫টি যুব ফোরাম গঠন করা হবে যার প্রতিটিতে ৩০ জন করে সদস্য থাকবেন এবং জেলায় যুবদের কাজে সহযোগিতার জন্য ৩০ জনের একটি নাগরিক প্ল্যাটফর্ম থাকবে।
স্বাবলম্বী উন্নয়ন সমিতির শেরপুর ডিস্ট্রিক্ট কো-অর্ডিনেটর ফিরোজ আহমেদের সঞ্চালনায় আরও বক্তব্য রাখেন পদোন্নতিপ্রাপ্ত উপসচিব অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মুকতাদিরুল আহমেদ, জেলা যুব উন্নয়ন অধিদপ্তরের উপপরিচালক নুরুজ্জামান চৌধুরী, জেলা মুক্তিযোদ্ধা ইউনিটের সাবেক কমান্ডার নুরুল ইসলাম হিরু, প্রেসক্লাব সভাপতি রফিকুল ইসলাম আধার, সাধারণ সম্পাদক আদিল মাহমুদ উজ্জল, বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুর রহমান তালুকদার, সাংবাদিক হাকিম বাবুল, ঝিনাইগাতী উপজেলা হিন্দু-বৌদ্ধ-খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদের সভাপতি রবেতা ম্রং, জেলা মহিলা পরিষদের সাধারণ সম্পাদক নীরু শামছুন্নাহার নীরা, নারী উদ্যোক্তা সাজেদা পারভীন ঝিনুক, সানজিদা জেরিন প্রমুখ।
সভায় সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মিজাবে রহমত, সহকারী কমিশনার অনিন্দিতা রানী ভৌমিক, আস্থা প্রকল্পের মনিটরিং ও রিপোর্টিং অফিসার অনন্যা জ্যোতি, ফিল্ড অফিসার সাইকা উম্মাসীসহ অন্যান্যরা উপস্থিত ছিলেন।


LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here