প্রধানমন্ত্রীর কাছে মুরাদ এমপির ক্ষমার আবেদন

20

আওয়ামী লীগের সমস্ত কার্যক্রমে অংশ নেয়ার সুযোগ চেয়ে প্রধানমন্ত্রীর কাছে সাধারণ ক্ষমার আবেদন করেছেন আলোচিত ও সমালোচিত সাবেক তথ্য ও সম্প্রচার প্রতিমন্ত্রী ডা. মুরাদ হাসান এমপি।

বৃহস্পতিবার (২২ ডিসেম্বর) তাঁর এই আবেদনপত্রের ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়।

আবেদনে লেখা, ‘আসসালামু আলাইকুম। যথাবিহীত সম্মান পূর্বক বিনীত নিবেদন এই যে, আমি ডা. মো. মুরাদ
হাসান, সংসদীয় আসন ১৪১, জামালপুর-৪ থেকে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ মনোনীত সংসদ সদস্য। আমার পিতা মহান মুক্তিযুদ্ধের সংগঠক, জামালপুর জেলা আওয়ামী লীগের
প্রতিষ্ঠাকালীন সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা প্রয়াত এডভোকেট মতিয়র রহমান তালুকদার। আমি জামালপুর জেলা আওয়ামী লীগের স্বাস্থ্য ও জনসংখ্যা সম্পাদক হিসেবে দায়িত্ব পালনকালে গত ২০২১ সালের ৭ ডিসেম্বর উক্ত পদ থেকে আমাকে অব্যাহতি প্রদান করে।’

‘আমি একজন মুক্তিযোদ্ধার সন্তান হিসেবে, আমি দৃঢ় প্রত্যয়ে অঙ্গীকার করতেছি যে ভবিষ্যতে এমন কোনো কর্মকাণ্ড করবো না, যার ফলে আপনার বিন্দুমাত্র সম্মানহানি হয়।’

‘অতএব, বিনীত নিবেদন এই যে, আমাকে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সকল কার্যক্রমে অংশগ্রহণের সুযোগ প্রদান করে বাধিত করবেন।

জামালপুর-৪ সরিষাবাড়ী আসনের সংসদ সদস্য ডা. মুরাদ হাসান বর্তমানে তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির সদস্য।

উল্লেখ, একজন চিত্র নায়িকার সাথে ফোনালাপকে কেন্দ্র করে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে ২০২১ সালের ৭ ডিসেম্বর প্রতিমন্ত্রীর পদ থেকে পদত্যাগ করেন মুরাদ হাসান। একইদিন তাকে জামালপুর জেলা আওয়ামী লীগের স্বাস্থ্য ও জনসংখ্যা বিষয়ক সম্পাদকের পদ থেকে অব্যাহতি দেওয়া হয়।