ঝিনাইগাতীতে গলায় ফাঁস দিয়ে গৃহ বধুর আত্মহত্যা

257

শেরপুর প্রতিনিধি : শেরপুরের ঝিনাইগাতী উপজেলার ধানশাইল ইউনিয়নের উত্তর কান্দুলী গ্রামে গৃহ বধূ মোছা. রুকিয়া বেগম(৪৫) গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছে। নিহত রুকিয়া বেগম ওই গ্রামের মো. আইয়ুব আলীর স্ত্রী ও ৩ছেলের জননী। ৯ আগষ্ট মঙ্গলবার সকালে এ ঘটনা ঘটে।

নিহতের পরিবার ও পুলিশ সুত্রে জানা গেছে, অন্যান্য দিনের মতোই মঙ্গলবার সকালে রুকিয়া বেগম তার পরিবারের জন্য রান্নার কাজ শেষ করেন। রুকিয়ার স্বামী আইয়ুব আলী সকালের খাবার শেষ করে সকাল ৭ ঘটিকার দিকে কৃষি কাজে বাইরে যান। সকাল ১০ ঘটিকার দিকে আইয়ুব আলী বাড়ীতে এসে স্ত্রী রুকিয়াকে থাকার ঘরের ধর্ণার সাথে ঝুঁলে থাকতে দেখে চিৎকার দেয়। প্রতিবেশীরা ছুটে এসে রুকিয়াকে সেখান থেকে নামালে মৃতবস্থায় দেখতে পায়।

খবর পেয়ে ঝিনাইগাতী থানার অফিসার ইনচার্জ(ওসি) মো. মনিরুল আলম ভুইয়া, ওসি(তদন্ত) মো. আবুল কাশেম, এসআই মো. জাকির হোসেন, এসআই ফরিদ উদ্দিন সঙ্গীয় অন্যান্য পুলিশ নিয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শণ করেন। এসময় নিহতের গলায় ফাঁসির দাগ পাওয়া যায়। পরে পুলিশ নিহতের লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য শেরপুর মর্গে প্রেরণ করেন।

নিহতের স্বামী আইয়ুব আলী জানান, তার স্ত্রী ও মেঝো ছেলে সোহেল(২৭) দীর্ঘদিন থেকে মানুষিক রোগে আক্রান্ত। কেন রুকিয়া এভাবে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করলো, বুঝতে পারছিনা।

এ ব্যাপারে ঝিনাইগাতী থানার অফিসার ইনচার্জ(ওসি) মো. মনিরুল আলম ভুইয়া সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, নিহতের লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য শেরপুর মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে।
ময়না তদন্তের রির্পোট এলে মৃত্যেুর কারণ জানা যাবে। আইনগত ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন।