ব্রাজিলের বিপক্ষে খেলতে চায় না আর্জেন্টিনা

108

স্টাফ রিপোর্টারঃ গত সেপ্টেম্বরে বিশ্বকাপ বাছাইয়ে ব্রাজিলের বিপক্ষে মাঠে নামার কথা ছিল আর্জেন্টিনার। তবে আর্জেন্টাইন ফুটবলাররা করোনা প্রটোকল না মানায় ম্যাচ শুরু হওয়ার খানিক পর ব্রাজিল স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের প্রভাবে বাতিল হয় ম্যাচটি।

আগামী সেপ্টেম্বরে ম্যাচটি খেলার সূচি নির্ধারণ করেছে আন্তর্জাতিক ফুটবল নিয়ন্ত্রণকারী প্রতিষ্ঠান ফিফা। তবে কোথায় হবে সেটি এখনো চূড়ান্ত হয়নি।

কিন্তু ফিফাকে আর্জেন্টিনা জানিয়ে দিল, তারা ব্রাজিলের সঙ্গে ম্যাচটি খেলতে চায় না। খবর আর্জেন্টাইন ফুটবলবিষয়ক ওয়েবসাইট মুন্দো আলবিসেলেস্তের।

আর্জেন্টিনা ফুটবল অ্যাসোসিয়েশনের (এএফএ) যুক্তি, বিশ্বকাপ বাছাইপর্বই শেষ হয়ে গেছে। ব্রাজিল ও আর্জেন্টিনা দুই দলই কাতার বিশ্বকাপের টিকিটি নিশ্চিত করে ফেলেছে।  এই ম্যাচটি তাই গুরুত্বহীন হয়ে পড়েছে।

অন্য আরেকটি যুক্তিও দেখাচ্ছে এএফএ।  সেটি হচ্ছে –  ব্রাজিল ও আর্জেন্টিনার একটা প্রীতি ম্যাচ খেলার কথা জুনে। ম্যাচের টিকিটও বিক্রি হয়ে গেছে।  বিজ্ঞাপন-সম্প্রচারক সংস্থাসহ কোটি টাকার বিনিয়োগ আছে।  তাই ম্যাচটি বাতিল করা যাচ্ছে না।

তাহলে ফিফার নির্দেশ মতো দুই মাস পরেই (সেপ্টেম্বর) ফের নেইমারদের মুখোমুখি হতে হচ্ছে মেসিদের। এর দুমাস পরেই বিশ্বকাপ।

তাই বিশ্বকাপের আগে ছয় মাসের মধ্যে নেইমারদের বিপক্ষে দুবার খেলতে চায় না মেসির আর্জেন্টিনা।

আর্জেন্টিনার যুক্তি, বিশ্বকাপ বাছাইপর্বেই তারা দক্ষিণ আমেরিকান সব দলের বিপক্ষে দুবার করে খেলেছে, বিশ্বকাপের আগে এই পাঁচ-ছয় মাসে নিজেদের গুছিয়ে নেওয়ার পথে মূলত ইউরোপের দলের বিপক্ষেই খেলতে চায় আর্জেন্টিনা।

১ জুন ইংল্যান্ডের ওয়েম্বলিতে ইতালির বিপক্ষে খেলবে আর্জেন্টিনা। ৬ জুন ইসরাইলের বিপক্ষে একটি প্রীতি ম্যাচ খেলার কথা আলবিসেলেস্তেদের।

যদিও বিষয়টি এখনো চূড়ান্ত হয়নি বলে জানিয়েছে মুন্দো আলবিসেলেস্তে।