১৮ দিনেও গ্রেফতার হয়নি আলোচিত সেই চিকিৎসক পরিতোষ সাহা

329

স্টাফ রিপোর্টার: আঠারো দিন পেরিয়ে গেলেও এখনো প্রেফতার করতে পারেনি পুলিশ আলোচিত সেই চিকিৎসক পরিতোষ চন্দ্র সাহাকে। শেরপুরের নকলায় অবসরপ্রাপ্ত উপ-সহকারি কমিউনিটি মেডিকেল কর্মকর্তা পরিতোষ চন্দ্র সাহার বিরুদ্ধে মাদরাসা ছাত্রীকে যৌন নিপীড়নের অভিযোগে গত ৩০ নভেম্বর এক মাদরাসার শিক্ষার্থী বাদী হয়ে থানায় মামলা দায়ের করেন। ১৮ দিন পেরিয়ে গেলেও এখনো গ্রেফতার হয়নি চিকিৎসক পরিতোষ চন্দ্র সাহা। ভুক্তভোগী বানেশ্বরদী ইসলামী দাখিল মাদরাসার ৯ম শ্রেণির শিক্ষার্থী।

স্থানীয় সূত্রে জানায়, গলার ব্যথার চিকিৎসা করাতে গত ৩০ নভেম্বর মঙ্গলবার বিকেলে নকলার পৌর শহরের উত্তবাজার সাহা মেডিকেল হলে চিকিৎসক পরিতোষ চন্দ্র সাহাকে দেখাতে শিক্ষার্থীকে নিয়ে আসেন তার নানি। এসময় চিকিৎসক পরিতোষ তার নাতনির গলা না দেখে তার নানির সামনেই শরীরের বিভিন্ন স্পর্শকাতর জায়গায় হাত দেয়। কিছুক্ষণ পর বিষয়টি জানাজানি হয়ে গেলে স্থানীয় জনতা সাহা মেডিকেল হলের সামনে বিক্ষোভ করে অবরোধ করে রাখেন। পরে সংবাদ পেয়ে পুলিশ ওই শিক্ষার্থীকে থানা হেফাজতে নিয়ে আসে। তবে এর আগেই কৌশলে পালিয়ে যায় অভিযুক্ত চিকিৎসক পরিতোষ চন্দ্র সাহা।

স্থানীয় সূত্র আরো জানায়, ৫/৭বছর আগে নকলা পরিবার পরিকল্পনা দপ্তরে পরিতোষ চন্দ্র সাহা উপসহকারি কমিউনিটি মেডিকেল কর্মকর্তা হিসেবে কর্মরত থাকাকালীন সময় আরেক রোগিকে নিয়ে যৌন নিপীড়নের ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়েছিল। শাস্তি সরুপ তাকে অন্যত্র বদলী করা হয়েছিল। আলোচিত সেই চিকিৎসক টক অপ দ্যা টাউনে পরিনত হয়েছে এবং এখনো গ্রেফতার না হওয়ায় এলাকাবাসীর মধ্যে ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে।

মামলাটির তদন্তকারী কর্মকর্তা (আইও) নকলা থানার উপপরিদর্শক (এসআই) মো. সিরাজুল ইসলাম বলেন, ঘটনার দিন থেকেই চিকিৎসক পরিতোষ চন্দ্র সাহা পলাতক রয়েছেন। আমরা তথ্য প্রযুক্তি ব্যবহারসহ বিভিন্ন মাধ্যমে তাকে গ্রেফতারের চেষ্ঠা করতেছি। তিনি আত্মগোপনে চলে গেছেন। তার ব্যবহারকৃত ফোনটিও ঘটনার দিন থেকে বন্ধ রয়েছে।