নকলায় আঞ্চলিক মহাসড়কে চলছে ধান ও খড় শুকানো, দুর্ঘটনার আশঙ্কা

71

স্টাফ রিপোর্টার : শেরপুরে আঞ্চলিক মহাসড়কসহ ছোটবড় পাকা রাস্তা এখন কৃষকদের ধান মাড়াই ও খড় শুকানোর চাতালে পরিণত হয়েছে। প্রতিটি সড়কের ওপর ধান ও খড়ের পালা। সারাক্ষণ চলছে ধান মাড়াইয়ের কাজ। সড়ক জুড়ে শুকানো হচ্ছে ধান ও খড়। এতে প্রতিনিয়ত ঘটছে ছোট বড় হতাহতের ঘটনা। সবচেয়ে বেশি দুর্ঘটনার শিকার হচ্ছে সিএনজি, ব্যাটারিচালিত অটো রিকশা, মোটরসাইকেল ও বাইসাইকেল আরোহীরা। আর নিয়ম কানুনের তোয়াক্কা না করে চলছে এসব কাজ। এতে সড়কটি সংকুচিত হয়ে পড়েছে।

রাস্তায় ধান উড়িয়ে পরিস্কার করার ফলে বাতাশে ছড়িয়ে ছিটিয়ে যাচ্ছে ধুলাবালি ও ময়লা। এসব পথচারীসহ যানবাহনের যাত্রীদের চোখে মুখে যাচ্ছে। যে কোন সময় দুর্ঘটনা ঘটতে পারে বলে যানবাহনের চালক ও সচেতন ব্যক্তিরা আশঙ্কা করছেন। তবে প্রশাসনের নেই কোন তৎপরতা। তাদের চোখের সামনে দিয়েই হচ্ছে এসব কাজ।

সরেজমিনে দেখা যায়, নকলা থেকে গৌড়দ্বার, লাভা, পাইস্কা বাইপাস, নালিতাবাড়ি পর্যন্ত অন্তত ২০ কিলোমিটার সড়কজুড়ে প্রায় ১০ গ্রামের কৃষকরা পুরো সড়কটি দখলে নিয়ে মাঠ থেকে ধান কেটে মহাসড়কের ওপর পালা করে যন্ত্র দিয়ে ধান মাড়াই করছেন। ধান মাড়াই শেষে সড়কজুড়ে ধান ও খড় শুকানো হচ্ছে। এতে বিশাল প্রশস্তের মহাসড়কটি এখন সরু সড়কে পরিণত হয়েছে। সেই সরু সড়কের ফাঁক-ফোকড় দিয়েই ঝুঁকি নিয়ে চলাচল করতে বাধ্য হচ্ছে ছোটবড় যানবাহন।