নকলায় গৃহবধূকে হত্যার অভিযোগে একই পরিবারের ৩জন গ্রেফতার

474

স্টাফ রিপোর্টার: শেরপুরের নকলায় জমিসংক্রান্ত কলহের জেরে শারমিন আক্তার (৪০) নামের এক গৃহবধূকে হত্যার অভিযোগ একই পরিবারের ৩জনকে গ্রেফাতার করেছে পুলিশ। শুক্রবার (১৬ এপ্রিল) সন্ধায় উপজেলার পাঠাকাটা ইউনিয়নের বারারচর এলাকায় ঘটনাটি ঘটে। নিহত গৃহবধূ ওই গ্রামের জহিরুল ইসলাম রুবেলের স্ত্রী।

স্থানীয় সূত্রে জানাযায়, দীঘদিন যাবৎ একই গোষ্ঠীর সুরুজ্জামান গংদের সাথে জহিরুল ইসলাম রুবেলের সাথে জমিজমা নিয়ে দ্বন্ধ চলছিল। গতকাল সন্ধায় কথাকাটাকাটির এক পর্যায়ে সুরুজ্জামান গংরা রুবেলের উপর চড়াও হলে শারমিন আক্তার ঝগড়া থামানোর চেষ্ঠা করলে উত্তেজিত হয়ে মাটিতে পড়ে যায়। পড়ে স্থানীয়রা প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে নকলা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসলে চিকিৎসক মৃত বলে ঘোষনা করেন। নিহত শারমিন বেশ কিছুদিন যাবৎ শারীরিকভাবে অসুস্থ্য ছিলেন বলে জানা যায়। তবে নিহতের স্বামী রুবেল জানান, সুরুজ্জামানের লাঠির আঘাতেই আমার স্ত্রী মারা গেছেন।

এ ঘটনায় নিহতের স্বামী নকলা থানায় ৫জনসহ আরো অজ্ঞাতনামা ৩/৪জনকে আসামী করে হত্যা মামলা দায়ের করলে পুলিশ রাতেই সুরুজ্জামান (৬৫), তার সন্তান মোজাম্মেল হক (৩৫) ও পুত্রবধূ ফরিদা ইয়াসমীন (২৫) কে গ্রেফতার করেন।

নকলা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোঃ মুশফিকুর রহমান জানান, এ ঘটনায় ৩জনকে গ্রেফতার করেছি। লাশ ময়না তদন্তের জন্য সদর হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে। ময়না তদন্তের রিপোর্ট পেলেই মৃত্যুর প্রকৃত কারন জানা যাবে।