নকলায় ভ্রাম্যমান আদালতের অভিযানে বাল্যবিয়ে বন্ধ: ৩জনকে ৭০ হাজার টাকা অর্থদন্ড

420

নিজস্ব প্রতিবেদক: শেরপুরের নকলা উপজেলার পৌরসভাধীন কুর্শাবাদাগৈড় এলাকায় ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করে বাল্যবিয়ে বন্ধ করা হয়েছে। বাল্যবিয়ের আয়োজনের সহযোগিতা করায় বাল্যবিবাহ নিরোধ আইন ২০১৭ এর আওতায় বর মিজানুর রহমানকে ৫০ হাজার, কন্যার পিতা সুরুজ্জামান ও ঘটক আবু বাক্কারকে ১০ হাজার টাকা করে জরিমানা করা হয়।

রবিবার (৪অক্টোবর) রাতে সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট কাউছার আহম্মেদের নেতৃত্বে এ অভিযান পরিচালনা করা হয়। এ সময় পুলিশ বিভাগের সদস্যসরা উপস্থিত ছিলেন।

স্থানীয় সূত্রে জানাযায়, ঢাকার দক্ষিন খান এলাকার মৃত আ: রশিদের পুত্র মিজানুর রহমানের সাথে ঘটক আবু বাক্কারের মাধ্যমে বিয়ে ঠিক হয় নকলা উপজেলার কুর্শাবাদাগৈর এলাকার সুরুজ্জামানের কন্যা ও স্থানীয় একটি স্কুলের দশম শ্রেনির এক শিক্ষার্থীর সাথে। রবিবার রাতে বর যাত্রী আসে বিয়ে করার জন্য। কুর্শাবাদাগৈড় এলাকায় বাল্যবিয়ে হচ্ছে বলে এমন একটি গোপন সংবাদের ভিত্তিতে সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট কাউছার আহম্মেদ কনের বাড়িতে ভ্রাম্যামান আদালত পরিচালনা করে বাল্যবিবাহ নিরোধ আইন ২০১৭ এর আওতায় বর,কন্যার পিতা ও ঘটককে মোট ৭০ হাজার টাকা অর্থদন্ড প্রদান করেন।

ভ্রাম্যমাণ আদালতের বিচারক সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট কাউছার আহম্মেদ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে প্রেস রিলিজের মাধ্যমে জানান, বাল্যবিয়ে একটি দন্ডনীয় অপরাধ। যারাই এ অপরাধের সাথে যুক্ত থাকবেন তাদের আইনের মাধ্যমে বিচার করা হবে। বাল্যবিয়ে রোধে এমন অভিযান অব্যাহত থাকবে।