শেরপুর প্রতিদিন ডট কম

Home জাতীয় বাবা হারানোর পর এখন এলাকা ছাড়ার জন্য হুমকি
বাবা হারানোর পর এখন এলাকা ছাড়ার জন্য হুমকি

বাবা হারানোর পর এখন এলাকা ছাড়ার জন্য হুমকি

রাজধানীর মিরপুরে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত হয়েছেন বাবা আরসাদ হাসান। এখন ঘাতকরা মাকে নিয়ে এলাকা ছাড়ার জন্য হুমকি দিচ্ছে বলে অভিযোগ করেছেন তার মেয়ে রাহিলা আঞ্জুম খুশবু।

রোববার (৩ সেপ্টেম্বর) জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে এক মানববন্ধনে এ অভিযোগ করেন তিনি। সম্প্রতি মিরপুরের কালশীতে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত আরসাদ হাসানের হত্যার বিচার ও তার পরিবারের সদস্যদের নিরাপত্তার দাবিতে এ মানববন্ধনের আয়োজন করা হয়।

মানববন্ধনে রাহিলা আঞ্জুম খুশবু বলেন, আমার আব্বার মৃত্যুটা দুর্ঘটনা নয়, ইচ্ছাকৃতভাবে আমার আব্বাকে মেরে ফেলা হয়েছে। যারা আমার বাবাকে যারা মেরেছে, তাদের কঠিন শাস্তি চাই।

তিনি বলেন, আব্বার মৃত্যুর পর আমরা পুলিশের কাছে গিয়েছি। কিন্তু পুলিশ আমাদের সহযোগিতা করেনি। তারা বলছে, দুর্ঘটনার পর নাকি ড্রাইভার আব্বাকে হাসপাতালে নিয়ে গেছে। কিন্তু প্রকৃত ঘটনা হলো, ড্রাইভার আমার আব্বাকে মেরে দ্রুত পালিয়ে গেছে। এখন গাড়ির মালিকের লোকেরা আব্বু মারা যাওয়ার পর আমাদের এলাকার ছাড়ার জন্য নানাভাবে হুমকি দিচ্ছে।

রাহিলা আঞ্জুম বলেন, বাবা ছাড়া জীবন চালানো অনেক কঠিন, অনেক কষ্টের। আমার মতো আর কোনো পরিবারের সন্তানদের যেন বাবা না হারাতে হয়।

এসময় রাহিলার মা, নিহতের স্ত্রী শাহিনা আঞ্জুম বেবী , ছেলে আসিফ হাসান ,  জনস্বার্থে বাংলাদেশের দপ্তর সম্পাদক মোস্তাফিজুর রহমান সুমন, যাত্রী কল্যাণ সমিতির এম মনিরুল হক, মনজুর হোসেন ,রুনা বেগম প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন ।

মানববন্ধনে বাংলাদেশ যাত্রী কল্যাণ সমিতির মহাসচিব মোজাম্মেল হক চৌধুরী বলেন, সড়কে অবকাঠামো নির্মাণে বৈপ্লবিক পরিবর্তন আসার কারণে যানবাহনের গতি বেড়েছে। গতিময় বিশৃঙ্খল সড়কে প্রতিদিন শত শত মানুষ দুর্ঘটনার শিকার হচ্ছে। এমন ভয়াবহ সড়ক দুর্ঘটনা প্রতিরোধে যথাযথ পদক্ষেপ না নিয়ে সরকার নানা ভুল তথ্য দিয়ে সড়ক দুর্ঘটনা ও প্রাণহানি কমছে বলে নানাভাবে জাহির করছে। অনতিবিলম্বে দুর্ঘটনার নামে ধারাবাহিক হত্যা বন্ধের দাবি জানাই।

তিনি বলেন, অধিকাংশ সড়ক দুর্ঘটনার মামলা হয় না। মামলা হলেও বিচার হয় না। বিচার হলেও রায়ের বাস্তবায়ন হয় না। ফলে অপরাধীরা কাউকে পরোয়া করে না। নতুন সড়ক পরিবহন আইন কার্যকর হলেও সড়কে দৃশ্যমান কোনো অগ্রগতি নেই। ফলে অপরাধীরা বারবার পার পেয়ে যাচ্ছে। তাই এই সেক্টরে আইনের শাসন প্রতিষ্ঠার জন্য সরকারের রাজনৈতিক অঙ্গীকার বাস্তবায়নের দাবি জানান তিনি। একইসঙ্গে মিরপুরের কালশীতে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত বিড়াল প্রেমী আরসাদ হাসান হত্যার বিচার ও তার পরিবারের সদস্যদের নিরাপত্তা দেওয়ার দাবি জানান মোজাম্মেল হক।

বাংলাদেশ মুঠোফোন গ্রাহক অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি মহিউদ্দিন আহমেদ বলেন- যে সড়কে মানুষ নিরাপত্তা বোধ করে না এ ধরণের মহাসড়ক, ফ্লাইওভার, এলিভেটেড এক্সপ্রেসওয়ের নির্মাণ করে লাভ কি? সবার আগে জনগণের নিরাপত্তার কথা ভাবতে হবে, জনগণের নিরাপত্তার কথা মাথায় রাখতে হবে।

বাংলাদেশ মোবাইল ফোন রিচার্জ ব্যবসায়ী অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি আমিনুল ইসলাম বুলু বলেন –  বেপরোয়া গাড়ি চালানো ও লাইসেন্সবিহীন অদক্ষরা গাড়ি চালানোর জন্যই যত্রতত্র সড়ক দুর্ঘটনা ঘটছে বলে তিনি মনে করেন। বুলু আরো বলেন – ‘সড়কে এভাবে আর কোন মূল্যবান প্রাণ যেন অকালে ঝরে না যায়। আর কোন মায়ের বুক যেন খালি না হয়। কোন স্ত্রী যেন তার স্বামীকে হারিয়ে বিধবা না হয়। আর কোন সন্তান যেন এতিম না হয়’।

সড়ক দুর্ঘটনায় হতাহত পরিবার ফোরামের আহবায়ক মনজুর হোসেন ইশা বলেন, সড়ক দুর্ঘটনায় ক্ষতিগ্রস্ত প্রতিটি পরিবারকে সরকারের তরফ থেকে ক্ষতি পুরণ দিতে হবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

5 × 4 =